শনিবার, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৮
Home > খেলা > ৩০০’র আগেই অলআউট নিউজিল্যান্ড

৩০০’র আগেই অলআউট নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক ॥
আবুধাবিতে ম্যাচের প্রথম দিনই নিশ্চিত হয়েছিল খুব বেশি রান করতে পারবে না নিউজিল্যান্ড। দ্বিতীয় দিন সকালে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান বিজে ওয়াটলিং লড়াই করে দলীয় সংগ্রহকে নিয়ে থামিয়েছেন তিনশর কাছাকাছি। ইয়াসির শাহ ও বিলাল আসিদের স্পিন ঘূর্ণিতে ২৭৪ রানেই থেমেছে নিউজিল্যান্ডের ইনিংস।

আগের দিন টসে জিতে ব্যাট করতে নামা টম লাথাম আর জিত রাভালের ২৪ রানের উদ্বোধনী জুটিটি ভাঙেন অভিষিক্ত পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদি। লাথামকে তিনি এলবিডব্লিউ করেন ৪ রানে। তিন নাম্বারে নামা কেন উইলিয়ামসন এরপর দলকে অনেকখানি বিপদের বাইরে নিয়ে চলে গিয়েছিলেন।

একটা সময় ১ উইকেটে ৭০ রান ছিল নিউজিল্যান্ডের। এমন মুহূর্তে ইয়াসির শাহর চমক। আগের টেস্টে কিউইদের রক্ত হিম করে দেয়া এই লেগস্পিনার ২ রানের ব্যবধানে তুলে নেন ৩ উইকেট।

এর মধ্যে ২৩তম ওভারে টানা দুই বলে ইয়াসির আউট করেন জিত রাভাল আর রস টেলরকে। ৪৫ রান করা রাভাল পড়েন এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে, টেলর শূন্য রানে হন বোল্ড। এর চার ওভার পর হেনরি নিকোলসকেও বোল্ড করেন ইয়াসির। নিকোলস করেন ১ রান। ৭২ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে তখন রীতিমত ধুঁকছে কিউইরা।

সেখান থেকে পঞ্চম উইকেটে বিজে ওয়াটলিংকে নিয়ে ১০৪ রানের জুটিতে দলকে লড়াইয়ে ফিরিয়েছিলেন উইলিয়ামস। কিউই অধিনায়কও ছিলেন সেঞ্চুরির দ্বারপ্রান্তে। তার আক্ষেপ বাড়ান হাসান আলি, ৮৯ রানে সাজঘরের পথ দেখিয়ে।

সঙ্গী হারিয়ে এরপর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছেন বিজে ওয়াটলিং। এর মধ্যে দুই ওভারের ব্যবধানে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম (২০) আর টিম সাউদিকে (২) নিজের শিকার বানান অফস্পিনার বিলাল আসিফ। ৭ উইকেটে ২২৯ রানে দিন শেষ করে কিউইরা।

দ্বিতীয় দিন ব্যাট করতে নেমে অভিষিক্ত উইলি সমারভিলকে নিয়ে অষ্টম উইকেট জুটিটা ৪৫ রানে পরিণত করেন ওয়াটলিং। তুলে নেন নিজের ক্যারিয়ারের ১৬তম হাফসেঞ্চুরি, পূরণ করেন টেস্ট ক্যারিয়ারে ৩০০০ রান। শেষ পর্যন্ত তিনি ৭৭ রানে অপরাজিতই থেকে যান। সমারভিল ১২ এবং এজাজ প্যাটেল ৬ রান করেন।

পাকিস্তানের পক্ষে বিলাল আসিফ ৫টি ও ইয়াসির শাহ নেন ৩টি উইকেট।