বুধবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৯
Home > খেলা > বাংলাদেশের বিপক্ষে এতগুলো ছক্কা কীভাবে মারলেন রোহিত!

বাংলাদেশের বিপক্ষে এতগুলো ছক্কা কীভাবে মারলেন রোহিত!

স্পোর্টস ডেস্ক ॥
দিল্লিতে হারের পর ভারতীয় দলের ওপর প্রচণ্ড চাপ পড়ে গিয়েছিল। ঘরের মাঠে বাংলাদেশের অর্ধেক শক্তির দলের কাছেও ৭ উইকেটে পরাজয় রোহিত শর্মাদের তুমুল সমালোচনার মুখে ফেলে দিয়েছিল। সেই সমালোচনা এবং লজ্জা থেকে বাঁচতে রাজকোটে সিরিজে ফেরা ছাড়া কোনো উপায় ছিল না ভারতীয় দলের।
সেই ফেরার কাজটাই হলো অধিনায়ক রোহিত শর্মার ব্যাটে ভর করে। রনাজকোটে ৪৩ বলে ৮৫ রান করেন রোহিত। মেরেছেন ছয়টি ছক্কা এবং ছয়টি বাউন্ডারি। শুধু তাই নয়, এক ওভারে টানা ছয়টি ছক্কাও মারতে চেষ্টা করেছিলেন। মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের বলে পরপর তিনটি ছক্কা মারার পর চতুর্থ বলে গিয়ে আর পারেননি। রোহিত নিজেই সে কথা জানিয়েছেন ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে।

তো বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে এতগুলো ছক্কা মারার রহস্য কি? কিভাবে এতগুলো ছক্কা মারলেন তিনি? হিটম্যান নিজেই জানালেন সে রহস্যের কথা। বলে দিলেন, ‘ছক্কা মারার জন্য সুন্দর সময়জ্ঞানই সব চেয়ে বেশি দরকার, মাসলম্যান হওয়ার দরকার নেই।’

রাজকোটে ঘূর্ণিঝড় ‘মাহা’র গতিতে ব্যাট করার পর রোহিত ক্রিকেটের পুরনো এক বিতর্ক আবার উসকে দিলেন। শক্তি বনাম শিল্পের বিতর্ক। মোসাদ্দেককে টানা তিনটি ছক্কা মারার পর তার ইচ্ছা ছিল টানা ছয় বলে ছয়টি ছক্কাই মারবেন। এ নিয়ে ম্যাচের পর রোহিত বললেন, ‘আমি চেষ্টা করেছিলাম ঠিকই; কিন্তু চতুর্থ বলে ছক্কা না হওয়ায় নিজেকে সংযত করতেই হল। তখন ভাবলাম, খুচরো রানই নিই। বেশি নড়াচড়া না করেই আমি স্ট্রোক নিচ্ছিলাম।’

যুবরাজ সিংয়ের ছয় ছক্কার রেকর্ড ধরতে না পারলেও রোহিতের ছক্কা মারার নৈপুণ্যে মুগ্ধ ক্রিকেট বিশ্ব। কোহলির অনুপস্থিতিতে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক ‘চাহাল টিভি’-তে এসে বলে দিলেন, ‘ছক্কা মারার জন্য পেশীবহুল হওয়ার দরকার পড়ে না।’

এমনকি রোগাপাতলা চেহারার চাহালের দিকে তাকিয়ে রোহিত বলে ওঠেন, ‘এমনকি, তুমিও ছক্কা মারতে পারো।’ রোহিতের সে কথা শুনে হাসিতে ফেটে পড়েন ভারতীয় লেগ স্পিনার। রসিকতা ছেড়ে এরপর রোহিত যোগ করেন, ‘ছক্কা মারা শুধুই শক্তির ব্যাপার নয়। টাইমিংটাও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। মাথা সোজা রাখতে হয়, শরীরের অবস্থান ভাল থাকতে হয়। এ সব কিছু ঠিকঠাক হলে তবেই ভাল ছক্কা মারা যায়।’

দিল্লিতে হারের পর যে চাপে পড়ে গিয়েছিলেন, সেটা স্বীকার করে নিলেন রোহিত। তিনি বলেন, ‘প্রথম ম্যাচটা হারায় আমাদের উপর কিছুটা চাপ তৈরি হয়েছিল; কিন্তু সিরিজে ফিরে আসার জন্য যা যা করার দরকার ছিল, আমরা করেছি।’